ঢাকা, ||

দুর্নীতি অনিয়মের অভিযোগে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান সুমনের বিরুদ্ধে মামলা


ফিচার

প্রকাশিত: ১০:০১ পূর্বাহ্ন, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৮

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মাহমুদ হাসান সুমনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি অনিয়মের অভিযোগে উচাঁখিলা স্কুল এন্ড কলেজের দাতা সদস্য, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুল হাসান খাঁন সেলিম মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ২৪৮/২০১৮ইং।

নানা অনিয়ম, গ্রুপিং এ শিক্ষার পরিবেশ ধবংস হচ্ছে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার এক সময়ের ঐতিহ্যবাহী উচাঁখিলা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়। মাধ্যমিক স্কুল থেকে কলেজ উন্নতির পর থেকেই দিনের পর দিন অবনতির দিকে যাচ্ছে। মাহমুদ হাসান সুমন অবৈধভাবে প্রভাব কাটিয়ে প্রতিষ্ঠানকে নিজের করায়ত্ব নেয়। তার এ মন আচরণে কমিটির সদস্য, অভিভাবক, শিক্ষক-শিক্ষার্থী এলাকাবাসী অসন্তুষ্ট।

বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটি উচাখিলা স্কুল অ্যান্ড কলেজ নামে পরিচালিত হচ্ছে। বিশেষভাবে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উচাখিলা স্কুল অ্যান্ড কলেজ এখন জালিয়াতির আখড়ায় পরিণত হয়েছে। দুর্নীতি অনিয়ম অবৈধভাবে নির্বাচন ছাড়াই ইতিপূর্বে কমিঠির সভাপতি পদ দখল করে মাহমুদ হাসান সুমন। এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন সভাপতি পদে থেকে নিয়োগ বাণিজ্য, বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ না করেও টাকা উত্তোলন, জে.এস.সি, এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি পরীক্ষার ফরম পূরণের অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার লাখ লাখ টাকা আত্নস্বাতের অভিযোগ রয়েছে। মাহমুদ হাসান সুমনের যোগ সাজশে প্রতিষ্ঠান প্রধান আব্দুল হালিম বীরদর্পে দূর্নীতি অনিয়ম বিধি বর্হিভূত ভাবে গভর্নিং বডির গঠন করার লক্ষে অবৈধ ভোটার তালিকা প্রণয়ন করে।

উচাখিলা স্কুল অ্যান্ড কলেজ গভর্নিং বডির নির্বাচনে সাধারণ অভিভাবকরা যাতে সঠিকভাবে ভোট দিতে না পারে, সেজন্য সভাপতি মাহমুদ হাসান সুমন ও অধ্যক্ষ আব্দুল হালিম ভোটার তালিকা বাংলায় প্রণয়ন না করে ইংরেজিতে প্রকাশ করেছেন । নির্বাচনে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বদ্বীতা করতে পারেন এমন অনেক অভিভাবকদেরও ইচ্ছাকৃতভাবে ভোটার তালিকা থেকে বাদ দিয়েছেন । জালিয়াতির লক্ষ্যে ভোটার তালিকায় অর্ন্তভূক্ত করা হয়েছে মৃত ব্যক্তিকেও। চরআলগী গ্রামের অভিভাবক কাজল আকতার বাদ পড়েছে ভোটার তালিকা থেকে। কাজল আকতারের মৃত স্বামী শামছুল হককে ভোটার তালিকায় নাম অর্ন্তভূক্ত করা হয়েছে। প্রকৃত ভোটার হিসেবে বাদ দেয়া হয়েছে কাজল আক্তারকে। ভোটার তালিকায় নাম অর্ন্তভূক্ত করা হয়নি একই গ্রামের শিক্ষার্থীর অভিভাবক মাহবুব আলম লিটনকে। বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ এনে গভর্নিং বডির নির্বাচনী কার্যক্রম বাতিল চেয়ে কাজী মোশাররফ হোসেনসহ ৫ জন বাদী হয়ে আরও অন্য একটি গত ১২ সেপ্টেম্বর ঈশ্বরগঞ্জ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা দায়ের করে। মামলা নং- ২৫৬/২০১৮ইং। আদালত থেকে ১৩ সেপ্টেম্বর সভাপতি, মাহমুদ হাসান সুমন, অধ্যক্ষ আব্দুল হালিম, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকতা, বিদ্যালয় পরিদর্শক, মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান ময়মনসিংহকে ১৪ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করে। গত শুক্রবার (১৪ সেপ্টেম্বর) নির্বাচনী প্রচারণা করছেন দুই প্রার্থী নূরুল হক ও হেলাল উদ্দিন। প্রার্থীদের সাথে নির্বাচনের বিষয়ে মোবাইলে কথা বলে তারা বলেন, অধ্যক্ষ নির্বিগ্নে নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে যেতে বলেন। মামলা কোন বিষয় নয়! সেটা আমরা দেখব।

এ বিষয়ে উচাখিলা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আনোয়ারুল হাসান খাঁন সেলিমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বাংলা ভাষার জন্য ১৯৫২ সালে দেশের মানুষ রক্ত দিয়েছেন। যেখানে হাইকোর্টে নির্দেশনা রয়েছে সকল স্থরে বাংলা লিখার। বাংলা ভাষা আর্ন্তজাতিক স্বীকৃতি লাভ করেছে। তারপর সে ভাষার প্রতি শ্রদ্ধা না দেখিয়ে গ্রামের সাধারণ অভিভাবক মানুষ যেন বুঝতে না পারে, সেই উদ্দেশ্যেই ইংরেজিতে প্রতিষ্ঠানের সভাপতি মাহমুদ হাসান সুমন ও অধ্যক্ষ আবদুল হালিম ইংরেজিতে ভোটার তালিকা প্রণয়ন করেন। যা খুবই দুঃখ জনক গর্হিত কাজ। এ ধরণের ক্রটিপূর্ণ অনিয়মের মাঝে নির্বাচন করায় প্রতিষ্ঠানের অভিভাবক ও সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

এ বিষয়ে অধ্যক্ষের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হইলে তিনি এ প্রতিনিধিকে বলেন প্রতিষ্ঠানের সভাপতি মাহমুদ হাসান সুমনের দিক নির্দেশনায় ভোটার তালিকা প্রণয়ন করেছি। আমার কিছু করার নেই। এ ব্যাপারে প্রতিষ্ঠানের সভাপতি মাহমুদ হাসান সুমনের সাথে দুর্নীতি অনিয়মের বিষয়ে জানতে চাইলে তার কোন মন্তব্য পাওয়া যায় নি।

জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ফখরুল ইমামের সাথে গতকাল ১৫.০৯.২০১৮ইং সন্ধা ৭:৩৭ মিনিটে মোবাইল নং ০১৭১১-৬৮৬৬০৮ যোগাযোগ করা হইলে তিনি বলেন এ বিষয়ে অভিযোগ শুনেছি। তবে সেলিম চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করলে সঠিক তথ্য বলতে পারবে। উল্লেখ্য যে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এবং দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) সভাপতি মাহমুদ হাসান সুমনের দুর্নীতি অনিয়ম প্রতিরোধ করে প্রতিষ্ঠানের উন্নতির লক্ষ্যে নির্বাচনী কার্যক্রম স্থগিত করার দাবি এলাকাবাসীর ।

Top